শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১

রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের দাম উর্ধ্বমুখী
রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের দাম উর্ধ্বমুখী

রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের দাম উর্ধ্বমুখী

নতুন সূর্য ডেস্কঃ

সিয়াম-সাধনার মাস মাহে রমজান সম্ভাব্য শুরু হচ্ছে কাল। এদিকে পবিত্র রমজানকে পুঁজি করে অধিক লাভের আশায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য বাড়িয়েছেন একশ্রেণি সিন্ডিকেট ব্যবসায়ী। দেশব্যাপী চলছে মহামারী করোনার ঢেউ। অথচ ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে বাড়ছে চাল, ভোজ্য সয়াবিনসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ। নেই বাজার দর মনিটরিং। বাজার দর মনিটরিং না থাকায় ব্যবসায়ীরা কৌশলে পকেট কাটছে ভোক্তাদের। এদিকে ভোক্তাদের সাশ্রয়ের দিক বিবেচনা করে ছয়টি পণ্যের দাম বেঁধে দিয়েছে সরকার। 
গতকাল নগরীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে প্রতিকেজি চাল খুচরা বাজারে খুচরা বাজারে প্রতিকেজি চাল স্বর্ণা মোটা ৪৮ টাকা, ২৮ বালাম ৫৬ টাকা, বাসমতি ৭০ থেকে ৭২ টাকা, মিনিকেট (ভালো মানের) ৬৫ থেকে ৬৬ টাকা, মিনিকেট (নিম্ন মানের) ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, ভোজ্য সয়াবিন বোতলজাত বসুন্ধরা (৫ লিটার) ৬২০ টাকা, রূপচাঁদা ৬৩০ টাকা, ফ্রেশ ৬৩০ টাকা, পুষ্টি ৬৩০ টাকা, তীর ৬৪০ টাকা দরে, লুজ সয়াবিন প্রতিলিটার ১৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। অথচ আড়াই মাস আগে প্রতিকেজি চাল স্বর্ণা মোটা ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা, ২৮ বালাম ৫০ থেকে ৫২ টাকা, বাসমতি ৬৫ থেকে ৬৮ টাকা, মিনিকেট (ভালো মানের) ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, মিনিকেট (নিম্ন মানের) ৫০ থেকে ৫২ টাকা, বোতলজাত সয়াবিন ফ্রেশ (৫ লিটার) ৫৮০ টাকা, তীর (৫ লিটার) ৫৮০ টাকা, পুষ্টি (৫ লিটার) ৫৭৫ টাকা ও রূপচাঁদা (৫ লিটার) ৫৯০ টাকা, লুজ সয়াবিন প্রতিলিটার ১২৫ টাকা দরে বিক্রি হয়। 
রমজানকে সামনে রেখে সব ধরনের সবজির দাম বেড়েছে। চলি­শ থেকে পঞ্চাশ টাকার নীতে কোনো সবজি কেনা যাচ্ছে না। প্রতিকেজি আলু ২০ টাকা, ঝিঙে ৪৫ থেকে ৫০ থেকে টাকা, ঢেঁড়শ ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কুশি ৫০ টাকা, পটল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, উচ্ছে ৬০ টাকা, খিরই ৫০ টাকা, পেঁপে ২৫ থেকে ৩০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা, কাঁচাকলা (প্রতি হালি) ২০ থেকে ২৫ টাকা, পেঁয়াজ দেশি ৪০ টাকা, রসুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা, লাল শাক ও ঘি কাঞ্চন শাক ৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। অথচ দুই সপ্তাহ আগে প্রতিকেজি ঝিঙে ৪০ থেকে ৪২ টাকা, ঢেঁড়শ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, কুশি ৪০ থেকে ৪৫  টাকা, পটল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, খিরই ৩৮ থেকে ৪০ টাকা, পেঁপে ২০ থেকে ২৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, কাঁচাকলা (প্রতি হালি) ২০ থেকে ২৫ টাকা, লাল শাক ও ঘি কাঞ্চন শাক ৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়। এছাড়া বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা দরে। 

এম/এইচ

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *