শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১

খালেদার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল
খালেদার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল

খালেদার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল

নতুন সূর্য ডেস্কঃ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশ নেওয়া প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে কি না, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে সরকার সিদ্ধান্ত নেবে।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘আমি মনে করি, সরকারকে এ বিষয়ে  আদালতে আসতে হতে পারে। কারণ, সরকার এটি (জেল সাজা স্থগিত করেছে) ফৌজদারি কার্যবিধি ৪০১ এর অধীনে করেছে। তবুও, প্রাসঙ্গিক দলিল ও আইন না দেখে, আমি এ বিষয়ে বিস্তারিত বলতে পারব না।’তিনি আরও বলেন, ‘তার (খালেদা) জন্য কী চিকিৎসা প্রয়োজন এবং দেশে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সম্ভব কি না, তাসহ সব বিষয় বিবেচনা করেই সরকার এ সিদ্ধান্ত নেবে।’

উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে সিঙ্গাপুর নিতে চায় তার পরিবার।  করোনা আক্রান্ত খালেদা জিয়াকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের কেবিন থেকে সিসিইউতে (করোনারি কেয়ার ইউনিট) স্থানান্তর করা হয়েছে। হঠাৎ শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় সোমবার বিকাল সাড়ে ৪টায় তাকে সিসিইউতে নেওয়া হয়।

এর আগে গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজায়’তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। করোনা আক্রান্তের ১৪ দিন অতিক্রান্ত হওয়ার পরে খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট করা হয়েছিল কিন্তু ফলাফল পজিটিভ আসে। এরপর ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে সিটি স্ক্যান (চেস্ট), হৃদযন্ত্রের কয়েকটি পরীক্ষা করা হয়। এরপর থেকে সেখানেই চিকিৎসাধীন তিনি।

৭৬ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত। দণ্ড নিয়ে তিন বছর আগে তাকে কারাগারে যেতে হয়। দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু পর পরিবারের আবেদনে সরকার গত বছরের ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়’ শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *